Benefits of garlic and proper rules of eating.jpg

রসুন এর উপকারিতা এবং খাওয়ার সঠিক নিয়ম

রসুন চিনেন না এমন মানুষ পাওয়া মুশকিল।তবে রসুন মশলা হিসাবে তরকারীতে ব্যাবহার করা হলেও আমাদের পরিচিত এই মশলার কিছু ঔষধি গুন আছে যা আমাদের মাঝে অনেকেই জানেন আবার অনেকেই জানেন না।যারা রসুনের উপকারিতা সম্পর্কে এখন পর্যন্ত কিছু জানেন না এবং আজকে পর্যন্ত রসুনকে স্রেফ একটি মশলা হিসাবেই চিনতেন আমাদের আজকের লেখা মূলত তাঁদের জন্যই।তাহলে চলুন আর্টিকেলের মূল আলোচনা শুরু করা যাক।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন রান্না করা রসুনের চাইতে কাঁচা রসুন খাওয়া হলে সেটি আমাদের শরীরের জন্য অনেক উপকারী।সুতরাং আপনাকে প্রতিদিন অন্তত এক কোয়া কাঁচা রসুন খাওয়ার।কাঁচা রসুন খাওয়া হলে এর সম্পূর্ণ পুষ্টি গুন আপনার শরীরে প্রবেশ করবে।

বায়োঅ্যাকটিভ সালফার আমাদের শরীরের উচ্চ রক্তচাপ কমাতে বিশেষ ভূমিকা রাখে।আর রসুনে বায়োঅ্যাকটিভ সালফার নামক এই উপদান উপস্থিথ থাকার কারনে রসুন খাওয়া হলে আমাদের উচ্চ রক্ত চাপের সমস্যা থেকে মুক্তি মিলে।আপনার বা আপনার বাড়িতে যদি কোন উচ্চ রক্ত চাপের রোগী থাকে তাহলে তাকে নিয়মিত কাঁচা রসুন খেতে বলুন।

আমাদের শরীরের বিভিন্ন জায়াগায় ক্ষতিকর টক্সিক জমে থাকে যা আমাদের শরীরের জন্য খুবই ক্ষতিকর।রসুনে ফাইটোনিউট্রিয়েন্টস নামের একটি উপাদান থাকে যা আমাদের শরীর থেকে এই ক্ষতিকর টক্সিক বাহিরে বের করে দিয়ে আমাদের শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়িয়ে তুলে।সুতরাং সুস্থ থাকতে চাইলে নিয়মিত রসুন খাওয়ার বিকল্প কিছু নাই।

আমরা জানি অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট নামক উপাদান আমাদের শরীরের ক্ষতিকর কোলেস্টেরল নষ্ট করে উচ্চ রক্তচাপ থেকে আমাদের সুরক্ষা দেয়।আর শরীরে ক্ষতিকর কোলেস্টেরল কমে গেলে আমাদের হার্ট সুস্থ থাকে।রসুনে প্রচুর পরিমানে অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট পাওয়া যায়।সুতরাং আপনার হার্ট যদি সুস্থ রাখতে চান তাহলে রসুন খান নিয়মিত।

আবহাওয়া পরিবর্তন শুরু হলেই কি আপনার ঠাণ্ডা জনিত সমস্যা বেড়ে যায়?যদি আপনার উত্তর হ্যাঁ হয় তাহলে আজকে থেকেই আপনি দুই কোয়া রসুন প্রতিদিন নিয়ম করে খাওয়া শুরু করুন আপনার যদি কাঁচা রসুন খেতে সমস্যা হয় তাহলে রসুনের চা খাওয়া শুরু করুন।দেখবেন ঠাণ্ডা জনিত সকল সমস্যা আপনার থেকে দূরে থাকবে।

আমরা উপরের আলোচনা থেকে জেনেছি যে রসুনে এমন কিছু উপদান আছে যা আমাদের শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে সাহায্য করে।আর এই প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ার কারনে আমাদের শরীরে ব্যাকটেরিয়া, ফাঙ্গাসসহ অন্যান্য জীবাণু আক্রমন করতে পারেনা ফলে আমাদের শরীর সুস্থ থাকে।

শরীরে বিভিন্ন রকমের ক্ষতিকর টক্সিন থাকার কারনে আমাদের ত্বকের উজ্জলতা নষ্ট হয়ে যায়।কিন্তু নিয়মিত রসুন খাওয়া শুরু করলে রসুনের বিভিন্ন রকম উপাদান আমাদের শরীর থেকে এইসব ক্ষতিকর টক্সিন বের করে ফেলে,এর ফলে আমাদের ত্বকের হারানো উজ্জলতা ফিরে আসে।

এছারাও প্রতিদিন যদি আপনি এক গ্লাস গরম পানির সাথে দুইটি রসুনের কোয়া খাওয়া শুরু করেন তাহলে আপনার রক্ত পরিস্কার হয়ে যাবে।নিয়মিত রসুন খাওয়া শুরু করলে আমাদের শরীরে অ্যান্টি-ইনফ্লেমেটারি নামক উপাদান বেড়ে যায় ফলে আমাদের শরীরের হাড় মজবুত হয়।

আমরা আমাদের ব্লগে নিয়মিত স্বাস্থ্য বিষয়ক বিভিন্ন লেখা পাবলিশ করি।আমরা এসব তথ্য বিভিন্ন ওয়েবসাইট এবং অভিজ্ঞ ডাক্তারের সাথে আলোচনা করে সেই বিষয়ের উপর আর্টিকেল লিখে আমাদের ওয়েবসাইটে পাবলিশ করি।সুতরাং আপনি আমাদের ওয়েবসাইটের লেখাগুলো কোন রকম দ্বিধা-দন্দ ছাড়াই অনুসরন করতে পারেন।ধন্যবাদ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *