Girls skin care in the summer season.jpg

গরমে মেয়েদের ত্বকের যত্ন নেওয়ার সেরা পদ্ধতি

বাংলাদেশ একটি গ্রীষ্মকালীন প্রধান দেশ হবার কারনে স্বাভাবিক ভাবেই আমাদের দেশে গরম অনেক বেশী।আমাদের মধ্য অনেককেই হয়ত বাহিরে বের হতে হয় না কিন্তু আমাদের বাড়িতে কি গরম কম?আর এই অতিরিক্ত গরমের কারনে আমাদের ত্বকের অবস্থা কাহিল।আমাদের আজকে এই আর্টিকেলে আমরা আলোচনা করব কিভাবে আপনার ত্বক আপনি গরম কালেও সুন্দর এবং কোমল রাখবেন।তাহলে চলুন শুরু করা যাক।

টমেটো চিনে না এমন কাউকে পাওয়া মুশকিল।আমাদের পরিচিত টমেটো আমাদের ত্বকের যত্নে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে।আপনার মুখ যদি অতিরিক্ত তৈলাক্ত হয় এবং ব্রনে ভরে যায় তাহলে একটি টমেটো কেটে সেটা থেকে রস বের করে নিয়ে এক টুকরা তুলার সাহায্যে সারা মুখে লাগিয়ে নিন (হাত দিয়ে লাগাতে যাবেন না)।মুখে দশ থেকে পনেরো মিনিট রাখার পর পরিস্কার পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

আপনি হয়ত বাড়িতে কলা এনে রেখেছেন কিন্তু কয়েকদিন পর যখন কলা কালো রঙ ধারন করে তখন সেটা ফেলে দেন।কিন্তু আপনি জানেন কি এই কালো কলা আপনার ত্বকের যত্নে আপনি ব্যাবহার করতে পারেন?কিন্তু কিভাবে?কালো হয়ে যাওয়া কলাটা প্রথমে হাতে চটকে পেস্ট তৈরি করুন এরপরে কলার সাথে এক চামচ খাঁটি মধু এবং দুই ফোঁটা লেবুর রস মিশিয়ে মুখে মেখে থাকুন ১৫ মিনিট এরপরে পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।ধুয়ে ফেলার পড়ে আপনার মুখে হালকা করে ময়শ্চারাইজার ব্যাবহার করুন আর ম্যাজিক দেখুন।

বেকিং সোডা নাম শুনেছেন নিশ্চয়?বেকিং সোডার অ্যান্টি-ইনফ্ল্যামেট আমাদের ত্বকের তৈলাক্ত ভাব দূর করতে সাহায্য করে।তিন চামচ পানির সাথে এক চামচ বেকিং সোডা মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করে মুখে লাগিয়ে দিতে হবে এরপর যখন বেকিং সোডা শুকিয়ে যাবে তখন ধুয়ে ফেলতে হবে।

ত্বকের যত্নে সেই প্রাচীন সময় থেকেই অ্যালোভেরা ব্যাবহার করে আসছে মানুষ।আপনার বাড়িতে যদি অ্যালোভেরা গাছ থাকে তাহলে ভালো অথবা যদি সংগ্রহ করতে পারেন তাহলে খুবই ভালো হয়।না থাকলেও সমস্যা নাই দোকানে যে অ্যালোভেরার জেল কিনতে পাওয়া যায় সেটা হলেও চলবে।অ্যালোভেরার জেল প্রথমে মুখে লাগাতে হইবে এবং যতক্ষণ না অ্যালোভেরার জেল আপনার মুখে শুকিয়ে যাচ্ছে ততক্ষণ অপেক্ষা করতে হবে।শুকিয়ে গেলে ঠাণ্ডা পানি দিয়ে মুখ পরিস্কার করে নিতে হবে।

লেবু আমাদের অনেক পরিচিত এবং সস্তা একটি ফল বলা চলে।পাতি লেবুর রস/খোসা আমাদের মুখের অতিরিক্ত তৈলাক্ত ভাব দূর করতে সাহায্য করে।গোলাপজল,গ্লিসারিন এবং পাতি লেবুর রস সমান পরিমানে মিশিয়ে মুখে ভালোভাবে লাগিয়ে দিতে হবে।টানা ২০ মিনিট আপনার মুখে রাখার পর ঠাণ্ডা পানির সাহায্যে ধুয়ে নিতে হবে।এতে করে দেখবেন আপনার মুখের ব্রনের সমস্যা দূর হয়ে যাবে।

আমরা আমাদের ব্লগে নিয়মিত স্বাস্থ্য বিষয়ক বিভিন্ন লেখা পাবলিশ করি।আমরা এসব তথ্য বিভিন্ন ওয়েবসাইট এবং অভিজ্ঞ ডাক্তারের সাথে আলোচনা করে সেই বিষয়ের উপর আর্টিকেল লিখে আমাদের ওয়েবসাইটে পাবলিশ করি।সুতরাং আপনি আমাদের ওয়েবসাইটের লেখাগুলো কোন রকম দ্বিধা-দন্দ ছাড়াই অনুসরন করতে পারেন।ধন্যবাদ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *